1. admin@dainikkhoborchitra.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০২:৪৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নড়াইলে বিয়ের ৮মাসের মাথায় লাশ হলেন তরুণী নন্দিতা মোংলায় শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর ৭২তম জন্ম বার্ষিকী পালিত মৃত্যু একদিনও ঘুমাতে দিল না কোটি টাকা দিয়ে তৈরি বাড়িতে,মুজিবুর রহমান কে রাজারহাট শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন শেখ কামাল এর ৭২তম জন্ম বার্ষিকী পালিত- যশোর আরবপুরে করোনা রুগীর আত্মহত্যা কলারোয়ায় নতুন করে আরো ৫ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে মোংলায় মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল’র জন্মদিনে দোয়া মাহফিল কেশবপুরে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন এ্যাসিল্যান্ড ইরুফা সুলতানা কেশবপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে ৬ জনকে জরিমানা করেছে কেশবপুরের গৌরীঘোনা ইউনিয়নে ভিজিএফ কার্ডের চাউল বিতরণ

আবারও বন্ধ হলো বেনাপোল বন্দর তবে চালু থাকবে আমদানি রপ্তানি

দৈনিক খবরচিত্র ডেস্ক
  • সময় : শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১
  • ৬২ বার পঠিত
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

মোঃ মনিরুজ্জামান

করোনা মহামারীর কারণে সার্বিক দিক বিবেচনা করে বেনাপোল সীমান্ত বন্ধের মেয়াদ আবারও বাড়ানো হয়েছে তবে আমদানি রপ্তানি চালু থাকবে।

শুক্রবার ১৬ জুলাই সকালে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা ওসি আহসান হাবিব বিষয়টি নিশ্চিত করে। বেনাপোল বন্দর বন্ধের নতুন মেয়াদ ৩১ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে বলে জানান তিনি।
বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারত ভ্রমণ বন্ধের বিষয়টিও উল্লেখ করেন তিনি।
তবে ভারত থেকে বাংলাদেশিদের দেশে ফেরার বিষয় আগের আগের ঘোষনা বহাল থাকবে।
সপ্তাহে তিনদিন রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার, আসার অনুমতি পাবেন এবং অবশ্যই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের ওসি আহসান হাবিব বলেন সর্বশেষ ১৩ জুলাই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঘোষণায় ৩১ জুলাই পর্যন্ত সীমান্ত বন্ধ রাখার কথা বলা হয়। তবে ভারতে আটকাপড়া বাংলাদেশিরা দেশে ফিরতে পারবে বলে জানান তিনি। পাশাপাশি সীমান্ত বন্ধ থাকলেও ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের পণ্যবাহী যানবাহন চলাচল আগের মতোই থাকবে।

জেলা প্রশাসক মো. তমিজুল ইসলাম খান বলেন, বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্ট দিয়ে গত ২৬ এপ্রিল থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত ভারতে আটকেপড়া ৬ হাজার ৩২৯ জন বাংলাদেশি যাত্রী ফেরত এসেছেন তার মধ্যে ১৪২ জন করোনা পজিটিভ, একই সময়ে ভারত থেকে এসেছে ৪১ বাংলাদেশীর মৃতদেহ, ভারতের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে গিয়ে তারা মারা যান।

করোনা পজিটিভ ২১২ জনকে যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের ডেডিকেটেড ইউনিটে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে এবং যশোর শহরের বাইরে অন্য হাসপাতালে পাঠানো হয় ২৮৮ জনকে।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর