1. admin@dainikkhoborchitra.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কলারোয়া উপজেলার ১০ টি ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান হলেন যারা বৃষ্টি ভেজা রাত পুলিশের চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে কেশবপুরে টাকা হাতিয়ে নেওয়া প্রতারক গ্রেফতার মাগে হিতে’র শিল্পী বাংলাদেশে এসে গান গাইতে চান কেশবপুরে স্কাউটসের ত্রি-বার্ষিক কাউন্সিল অনুষ্ঠিত গৌরীঘোনায় সরকারী পরিষেবায় দলিত জনগোষ্ঠীকে অন্তর্ভুক্তি বিষয়ক এডভোকেসী সভা অনুষ্ঠিত কেশবপুরে দলিত জনগোষ্ঠীর জীবন-মান উন্নয়নে ১০ দিন ব্যাপী হাউজ ওয়ারিং প্রশিক্ষণ শুরু কেশবপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত জমে উঠেছে দিঘলিয়া উপজেলার ইউ.পি.নির্বাচন মনিরামপুর ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সচেতনতামুলক সভা ও মাস্ক বিতারণ

ছাতকের গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

দৈনিক খবরচিত্র ডেস্ক
  • সময় : শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৫৬ বার পঠিত
সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ ফজল উদ্দিন,ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের ছাতকে গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমানের উদ্যোগে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ছাতক উপজেলা বিভক্তি করণ ও নাম করণ এবং স্থান নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে এ প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বেলা ২টায় পরিষদের কনফারেন্স হল রুমে প্রতিবাদ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, ইউপি চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান।

সমাবেশে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সদস্য আবদুস সহিদ মুহিত, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন ও সুন্দর আলী, এডভোকেট আবুল হাসান, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মখলিছুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমদ, ব্যবসায়ী রুহুল আমীন, মাওলানা নুরুল ইসলাম, আবুল লেইছ মো. কাহার, শিল্পপতি আশরাফুর রহমান চৌধুরী, মাস্টার আবদুল লতিফ, ইরফান আলী, রইছ আলী, ছৈলা আফজলাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গয়াছ আহমদের প্রতিনিধি লাল মিয়া মেম্বার, নোয়াব আলী মেম্বার ও মিলন ধর, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফারুক আহমদ সরকুম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, মাস্টার নাছির উদ্দিন, তাহের আহমদ চৌধুরী, মাওলানা জালাল উদ্দিন, কাজী মাওলানা আবদুস সামাদ, আলা উদ্দিন, ছাদিকুর রহমান, আশরাফ এনাম, উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি আবু হানিফা সায়মন, কাওছার আহমদ, দেলোয়ার হোসেন নজমুল মেম্বার, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মখলিছুর রহমান, যুবলীগ নেতা সমুজ আলী, সদরুল আমীন সোহান, পল্লিবিদ্যুৎ সমিতির পরিচালক সুয়েব আহমদ, জাহাঙ্গীর আলম, ফয়ছল আহমদ সুমন, ছাদিকুর রহমান, পীরপুর বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক আলা উদ্দিন, মিজানুর রহমান, রাজ উদ্দিন, আরজ আলী, আবদুল খালিক, শফিক উদ্দিন, রজব আলী মোল্লা, জামাল আহমদ, রুবেল আহমদ, আবদুল গনি, জামাল উদ্দিন, আবদুর রহমান, মাওলানা এমরান আলী, মাসুক মিয়া, দিলবর আলী, আজির মিয়া, মহসিন আহমদ, সিদ্দিকুর রহমান, রইছ আলী, আবদুস সাত্তার, আইয়ূবুর রহমান, আবদুর রহিম, পারভেজ আহমদ, রফিক মিয়া, আমিন উদ্দিন, আইনুদ্দিন, আবুল বাশার, আলতা মিয়া, নিজাম উদ্দিন, রাকিব আলী, রাজাউর রহমান, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের সচিব বুরহান উদ্দিন, সদস্য মাহমদ আলী, হুসাইন আহমদ লনি, আলকাব আলী, রাজন তালুকদার, আনোয়ার হোসেন, সুরেতাজ মিয়া, নিজাম উদ্দিন, আবদুর রহমান, সাবেক সদস্য আলমগীর কবির, ইউপি সদস্যা শুভা রানী দাশ, রেহেনা বেগম ও ছাদিকা বেগম, ইউডিসি উদ্যোক্তা মো. সুজেল মিয়াসহ ইউনিয়নের ৫৩টি গ্রামের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিবাদ সমাবেশে গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমানকে আহবায়ক করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটির মাধ্যমে পরবর্তী সকল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

বক্তারা বলেন, দক্ষিণ ছাতক উপজেলা বাস্তবায়নে গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন ও ছৈলা আফজলাবাদ ইউনিয়নকে অন্তর্ভূত করায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তারা বলেন, আমরা ছাতকের সাথে ছিলাম আছি এবং থাকব। প্রয়োজনে দুই ইউনিয়নের জনগণকে সাথে নিয়ে পরবর্তী সকল আন্দোলন কর্মসূচি গ্রহণ করব।

গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান জানান, ছাতক উপজেলা বিভক্তি করণ ও নাম করণ এবং স্থান নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়ে গত ১১ জুলাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত আবেদন করেছিলেন।

কিন্তু কোন প্রদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। তিনি আরও বলেন, উপজেলা বিভক্তি করণ ও নাম করণ এবং স্থান নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়টি তার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এ বিষয়ে কয়েকটি ইউনিয়ন পরিষদ তাদের মতামত প্রকাশ করেছেন।

কিন্তু তিনি বা তার ইউনিয়ন পরিষদের কেউ কারও নিকট কোন মতামত প্রদান করেননি। এর পরও একটি পক্ষ তার ইউনিয়নের নাম বিভক্তির তালিকায় বিনা অনুমতিতে অন্তর্ভুক্ত করায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর